যিনি রোগীর চিকিৎসা করেন, তিনি রোগীর পরিজনদের চমকাতেও পারেন! একটি ভিডিও-র দৌলতে বিতর্কের সূত্রপাত৷ প্রশ্নের মুখে দক্ষিণ ২৪ পরগণার কুলপির বিএমওএইচ তনুশ্রী কুন্ডু৷ গত মাসের শেষের দিকে স্থানীয় রামনগর গাজীপুর এলাকার এক প্রসূতি ভর্তি হয়েছিলেন কুলপি গ্রামীণ হাসপাতাল। প্রসবের পর অপারেশন করে কপারটি লাগানো হয়েছিল প্রসূতির। পরিবারের অনুমতি ছাড়া কেন কপারটি লাগানো হল, তা নিয়েই গণ্ডগোলের সূত্রপাত। অভিযোগ, কুলপি গ্রামীণ হাসপাতাল চত্বরে ব্লক মেডিকেল অফিসারের কোয়ার্টারের সামনে প্রসূতির পরিবারের লোকজনেরা জড় হয়ে মহিলা বিএমওএইচকে উদ্দেশ্য করে অশালীন কথাবার্তার পাশাপাশি হুমকি দিতে থাকে৷ এমনকি কোয়ার্টারের দরজায় ধাক্কাধাক্কি করা হয় বলে অভিযোগ। আতঙ্কে বিএমওএইচ তনুশ্রী কুন্ডু ফোন করেন কুলপি থানাতে। পুলিশ এসে অভিযুক্তদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়। যদিও রোগীর পরিবারের বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর করেননি বিএমওএইচ।